চীনের বিপ্লবী নেতা চান ওয়েন থিয়েন


alt১৯০০ সালের আগষ্ট মাসের ৫ আগস্ট সাংহাইয়ের ফুতুংয়ে চান ওয়েন থিয়েনের জন্ম ১৯২৫ সালে তিনি চীনের কমিউনিষ্ট পার্টিতে যোগ দেন এবং একই বছর চুনসান বিশ্ববিদ্যালয় ও বিপ্লবী প্রফেসার ইন্সটিটিউটে লেখাপড়ার জন্য মস্কো যান ১৯৩০ সালে চান ওয়েন থিয়েন দেশে ফিরে আসেন ১৯৩১ সালে চান ওয়েন থিয়েন চীনের কমিউনিষ্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার বিভাগের প্রধান, পার্টির অস্থায়ী কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য ও স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন

১৯৩৩ সালে চান ওয়েন থিয়েন পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির বিপ্লবী ঘাঁটি এলাকায় যান তিনি সেখানে পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য ও কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকীয় মন্ডলীর সম্পাদক হন ১৯৩৪ সালে চাও ওয়েন থিয়েন লং মার্চে অংশ নেন

লং মার্চের সময় চান ওয়েন থিয়েন মাও সেতুংয়ের নির্ভুল সামরিক নীতিকে দৃঢভাবে সমর্থন করেছিলেন মাও সেতুং ও ওয়াং চিয়া সিয়ানের সঙ্গে মতবিনিময়ের পর চুন ই সম্মেলনে ভাষণ দেয়ার সময় চাও ওয়েন থিয়েন' বাম পন্খিসামরিক ভুলের বিরোধিতা করেছেন এবং চীনের কমিউনিষ্ট পার্টি ও লাল ফৌজকে বাঁচানো আর পার্টির সামরিক লাইনের মৌলিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন ইয়েআন অবস্থানকালে চান ওয়েন থিয়েন গোটা পার্টির তাত্ত্বিক প্রচার ও ক্যাডার প্রশিক্ষণের দায়িত্ব পালন করেন১৯৩৮ সালের পর চান ওয়েন থিয়েন চীনের কমিউনিষ্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য, সম্পাদক মন্ডলীর সম্পাদক, পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার মন্ত্রী ও মাক্সবাদ লেনিনবাদ ইন্সটিটিউটের প্রধান পদে কাজ করেছিলেন তিনি চীনের জাপ- আক্রমণ বিরোধী সংগ্রামের জন্য অনেক প্রচার ও শিক্ষার কাজ করে পার্টির জন্য অনেক ক্যাডার প্রশিক্ষণ করেছেন তার দেওয়া' যুবকের নৈতিকতা' আর' আচার আচরণ সমস্যা' প্রভৃতি ভাষণ ব্যাপক ক্যাডার ও যুবক সমাজে প্রভাব বিস্তার করেছে ১৯৪১ সালে ইয়েনআনে শুদ্ধিকরণ অভিযান শুরু হওয়ার পর চান ওয়েন থিয়েন এক বছর সময় নিয়ে শানসি প্রদেশের উত্তরাঞ্চল আর সানসি প্রদেশের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের গ্রামাঞ্চলে তদন্ত চালিয়ে অনেক তদন্ত রির্পোট লিখেছিলেন

জাপ-আক্রমণ বিরোধীযুদ্ধে জয় লাভের পর চান ওয়েন থিয়েন উত্তর-পূর্ব চীনে কাজ করতে শুরু করেন তিনি চীনের কমিউনিষ্ট পার্টির হেচিয়ান প্রাদেশিক কমিটির সম্পাদক, পার্টির উত্তর-পূর্ব ব্যুরো কমিটির স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ও সাংগঠনিক মন্ত্রী ছিলেন তার লেখা' উত্তর-পূর্ব চীনের অর্থনীতির কাঠামো ও অর্থনৈতিক গঠন কাজের মৌলিক নীতি ' নামে প্রবন্ধ নয়াচীনের অর্থনৈতিক উন্নয়নে তাত্ত্বিক ভিত্তি স্থাপন করেছে

১৯৫০ সালের পর চাও ওয়েন থিয়েন কূটনৈতিক ফ্রন্টে কাজ করেছিলেনতিনি সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নে চীনের রাষ্ট্রদূত আর চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী ছিলেনতিনি চীনের অনেক কূটনৈতিক অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন এবং নয়াচীনের কূটনৈতিক ব্রতে বিরাট অবদান রেখেছিলেন ১৯৭৬ সালের পয়লা জুলাই চান ওয়েন থিয়েন চিয়ান সু প্রদেশের উ সি শহরে রোগাক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন

সংগ্রহ: China Radio International থেকে।

© 2017. All Rights Reserved. Developed by AM Julash.

Please publish modules in offcanvas position.